ছোট ভাইকে অপহরণ করে বাবার কাছে ৬০ লাখ টাকা দাবি

ছোট ভাইকে অপহরণ করে বাবার কাছে ৬০ লাখ টাকা দাবি

নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টার অভিযোগে তারই বড় ভাইসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত স্কুলছাত্র ফাহাদ জামিলকে উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে অপহৃত স্কুলছাত্রকে উদ্ধার ও অপহরণকারী তিনজনকে আটক করা হয়। আটকরা হলেন- ফাহাদ জামিলের বড় ভাই মারুফ জামিল (৩০), মারুফের সহযোগী সোহান (২৬) ও জিসান (৩০)।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক মিজানুর রহমান জানান, নারায়ণগঞ্জ শহরের ভূইয়াপাড়া এলাকার মো. মনির হোসেনের ছেলে ফাহাদ জামিল নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। সে গত ১৭ এপ্রিল সকালে স্কুলের উদ্দেশ্য বাসা থেকে বের হয়। স্কুল থেকে সন্ধ্যায় বাসায় ফেরার কথা থাকলেও সে আর বাসায় ফেরেনি। পরবর্তীতে সন্ধ্যা ৭টায় অপরিচিত একটি মোবাইল নাম্বার থেকে ফাহাদের বাবার মোবাইলে ফোন দিয়ে বলে আপনার ছেলেকে জীবিত ফেরত চাইলে রাত ৯টার মধ্যে ৬০ লাখ টাকা দিতে হবে। যদি এই বিষয়টি থানায় জানানো হয় তাহলে ফাহাদকে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে। এ কথা বলে সঙ্গে সঙ্গেই নাম্বারটি বন্ধ করে দেয়া হয়। রাতে ফাহাদের বড় ভাই মাছুম জামিল নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, পরে মোবাইল ফোন ট্র্যাক করে জানা যায় অপহরণের পর ফাহাদকেসহ অপহরণকারীরা প্রথমে ফতুল্লার লালপুর ও পরে মুন্সীগঞ্জ যায়। পরবর্তীতে র্যাবের সহায়তায় মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাট থেকে অপহৃত ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। সেখান থেকে ওই তিনজনকে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এমজে/