মেঘালয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা: সুনামগঞ্জে দ্রুত বোরো ধান কাটতে মাইকিং

মেঘালয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা: সুনামগঞ্জে দ্রুত বোরো ধান কাটতে মাইকিং

ঢাকা, ৩০ এপ্রিল (জাস্ট নিউজ) : ভারতের মেঘালয় ও চেরাপুঞ্জিসহ সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাতের আশংকায় এপারের বোরো ফসলী হাওর ও নদীগুলোতে আকস্মিক পানি বৃদ্ধি পেতে পারে। এ কারনে দ্রুত সময়ের মধ্যে বোরো ফসলীর জমির ধান কাটতে রবিবার সুনামগঞ্জের তাহিরপুরসহ সবক’টি উপজেলায় মাইকিং করে কৃষককের সর্তক করা হয়েছে।

সোমবার থেকে আগামী বুধবার পর্যন্ত ৩ দিন ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে বোরো ফসল ডুবির আশংকায় রবিবার জেলার তাহিরপুরসহ প্রতিটি উপজেলায় দ্রুত সময়ের মধ্যে ধান কাটার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড, উপজেলা প্রশাসন ও কাবিটা প্রকল্প বাস্তবায়ন মনিটরিং কমিটির পক্ষ থেকে মাইকিং করে কৃষকদের আগাম সতর্কবার্তা পৌছানো হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুর্ণেন্দু দে সিলেট আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবীদ সাঈদ আহমদ চৌধুরীর বরাত দিয়ে রবিবার রাতে গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার ও মঙ্গলবার যথাক্রমে ২৫ ও ৩০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হবে সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে।

তিনি আরো বলেন, উজানে (ভারতের মেঘালয় ও চেরাপুঞ্জিতে ) ১৪০ থেকে ১৬০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে। উজানের বৃষ্টির পানি হাওরাঞ্চলে নদীতে এসে নামবে। তাতে নদীর পানি বৃদ্ধি পাবে।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, জেলার সুরমা, জাদুকাঁটাসহ সব নদীর পানির উচ্চতা গত ৩ দিনে প্রায় আধা মিটার কমেছিল। সুরমা নদীর সুনামগঞ্জ পয়েন্টে পানির উচ্চতা ২৫ এপ্রিলে ছিল ৩ মিটার। রবিবার সেটি কমে হয়েছে ২. ২৯ মিটার।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানা গেছে, আগামী ২ দিনে প্রচুর বৃষ্টিপাত হবে। ভারতের মেঘালয় এবং চেরাপুঞ্জিতেও বৃষ্টি হবে। এই অবস্থায় বিভিন্ন উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির লোকজনকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে কৃষকদের দ্রুত ধান কাটা শেষ করতে তাগিদ দেয়ার জন্য।

(জাস্ট নিউজ/এমআই/০৯২৪ঘ.)