সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতলো বাংলাদেশ

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতলো বাংলাদেশ

লক্ষ্য মাত্র ১২৫ রান! সেটা তাড়া করতে গিয়েই বিপদে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতলো নাজমুল হোসেন শান্তর দল। একই সঙ্গে শুভ সূচনা করলো চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।

মোস্তাফিজুর রহমান-রিশাদ হোসেনরা দুর্দান্ত বোলিং করে শ্রীলঙ্কাকে ১২৪ রানে আটকে রাখেন। সেটা তাড়া করতে নেমে ৬ রানে দুই ওপেনারকে হারায় বাংলাদেশ। ২৮ রানে দলকে বিপদে রেখে ফেরেন অধিনায়ক শান্তও।

এরপর লিটন কুমার দাস ও তাউহিদ হৃদয় মিলে দলকে খাঁদের কিনারা উদ্ধার করেন। দুজনে গড়েন ৬৩ রানের জুটি। লঙ্কান অধিনায়ক ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাকে টানা ৩ ছক্কা মারার পর চতুর্থ বলে আউট হন হৃদয়। তার ব্যাট থেকে আসে ২০ বলে ৪০ রান। শুরু থেকে একপ্রান্ত আগলে রাখা লিটন তখনও উইকেটে ছিলেন।

কিন্তু ৮ রানের ব্যবধানে তিনি ফিরলে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে মিডল অর্ডার। ৩৮ বলে ৩৬ রান করেন লিটন।

২২ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে তখন চোখ রাঙাচ্ছিল হার। দুই ওভারে প্রয়োজন ১২ রান। ১৯তম ওভারের প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে কাজ সহজ করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরপর ওই ওভারের শেষ বলে ডাবল নিয়ে নিশ্চিত করেন জয়।
অধিনায়ক শান্তও দলকে বিপদে ফেলে ফিরলেন

৬ রানে ২ উইকেট হারানোর লিটন আর শান্ত মিলে জুটি গড়ার চেষ্টা করছিলেন। তবে পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে দলকে বিপদে রেখে ফিরে গেলেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

এবার ফিরলেন তামিম, শুরুতেই চাপে বাংলাদেশ

সৌম্যের পর এবার ফিরে গেলেন আরেক ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম। ১২৫ রান তাড়া করতে নেমে ৬ রানে ২ ওপেনারকে হারিয়ে শুরুতেই চাপে পড়লো বাংলাদেশ।

শুরুতেই উইকেট ছুড়ে দিলেন সৌম্য

১২৫ রান তাড়া করতে নেমে তৃতীয় বলেই উইকেট হারালো বাংলাদেশ। উইকেট ছুড়ে দিলেন সৌম্য সরকার।

বাংলাদেশের লক্ষ্য ১২৫ রান

প্রথম ৬ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৫৩ রান তুলে ঝড়ো শুরু পেয়েছিল। তবে এরপর দারুণভাবে কামব্যাক করেছে বাংলাদেশ। ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট নিয়ে লঙ্কানদের ১২৪ রানে আটকে রেখেছে টাইগাররা। বাংলাদেশের হয়ে মোস্তাফিজুর রহমান ও রিশাদ হোসেন নেন ৩টি করে উইকেট। এছাড়া তাসকিন আহমেদ ২টি ও তানজিম হাসান সাকিবের শিকার ১টি উইকেট।

এবার ফিরলেন ম্যাথুস

দুর্দান্ত এক স্লোয়ার ডেলিভারিতে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকে ফেরালেন তানজিম হাসান সাকিব।

মোস্তাফিজের তৃতীয় শিকার

টানা দুই বল ডট যাওয়ার পর মোস্তাফিজকে তাড়া করতে যান মাহেশ থিকসানা। এজড হয়ে থার্ডম্যানে উড়ে গেলে সেটা তালুবন্দি করেন তানজিম হাসান সাকিব। ম্যাচে এটা ফিজের তৃতীয় শিকার।

উইকেট নিয়ে কোটা শেষ করলেন তাসকিন

৪ ওভারের কোটার শেষ বলে দাশুন শানাকে ফেরালেন তাসকিন আহমেদ। উইকেটের পিছনে ক্যাচ নেন লিটন কুমার দাস।

আবার রিশাদের শিকার, লিটনের দুর্দান্ত স্টাম্পিং

আবারও উইকেট নিলেন রিশাদ হোসেন। এই লেগির দারুণ ডেলিভারিতে লিটন কুমার দাসের দুর্দান্ত স্টাম্পিংয়ে শেষ হলো ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ইনিংস।

দুই বলে দুই উইকেট নিলেন রিশাদ

টানা দুই বলে দুই উইকেট নিলেন রিশাদ হোসেন। আগের বলে আসালাঙ্কাকে ফেরানোর এবার তার শিকার শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। স্লিপে এবার দারুণ ক্যাচ নিলেন সৌম্য সরকার।

এবার রিশাদের শিকার হয়ে ফিরলেন আসালাঙ্কা

নিজের তৃতীয় ওভার করতে এসে প্রথম বলেই উইকেটের দেখা পেলেন রিশাদ হোসেন। তাকে সুইপ করতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে সাকিবের হাতে ধরা পড়লেন আশালাঙ্কা। বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারে এটাই প্রথম উইকেট রিশাদের, এটা অভিষেক ম্যাচও।

১০ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৭৪/৩

৬ ওভারে ৫৩ রান তুলে উড়ন্ত শুরু পেয়েছিল শ্রীলঙ্কা। পরের ৪ ওভারে তাদের লাগাম কিছুটা টেনে ধরেছে বাংলাদেশ। এই ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে ভয়ঙ্কর নিশাংকার উইকেট তুলে নিয়েছে টাইগাররা।

ভয়ঙ্কর নিশাঙ্কাকে ফেরালেন মোস্তাফিজ

শুরু থেকেই আগ্রাসী শ্রীলঙ্কান ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছিলেন। এবার তাকে ফিরিয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তি এনে দিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। আগের বলে চার হজম করা ফিজ এবার করেছিলেন গতি কমিয়ে কার্টার। সেটাকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে লং অফে তুলে দেন নিশাঙ্কা, ক্যাচ নিয়েই উল্লাসে মাতেন অধিনায়ক শান্ত। ২৮ বলে ৪৭ রান করেন নিশাঙ্কা।

পাওয়ার প্লেতে শ্রীলঙ্কা ৫৩/২

টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ভালো শুরু পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ৫৩ রান তুলেছে দলটি। তবে ২ উইকেট তুলে কিছুটা হলেও লাগাম টেনেছে বাংলাদেশ।

বল হাতে নিয়েই মোস্তাফিজের ভেলকি, ফিরলেন কামিন্দু

আগের ওভারেই ৪টি চার হজম করেন সাকিব আল হাসান। দুর্দান্ত গতিতে এগোচ্ছিল শ্রীলঙ্কা। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে আক্রমণে এসেই উইকেট নিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। এই বাঁহাতি পেসারকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে শর্ট লং অফে তানজিম হাসান সাকিবের হাতে ধরা খেলেন কামিন্দু মেন্ডিস।

শুরুতেই মেন্ডিসকে ফেরালেন তাসকিন

চোট কাটিয়ে ফেরার ম্যাচে বল হাতে প্রথম দুই বলেই চার হজম করেন তাসকিন আহমেদ। তবে তৃতীয় বলে শ্রীলঙ্কান ওপেনার কুশল মেন্ডিসকে ফিরিয়ে প্রতিশোধ নিলেন তিনি। ৩ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ২৫ রান।

টস জিতে ফিল্ডিং করবে বাংলাদেশ, আছেন তাসকিন নেই শরিফুল

শুরু হয়ে গেলো বাংলাদেশের বিশ্বকাপ। প্রথম ম্যাচে আজ ডালাসের গ্রান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হচ্ছে টাইগাররা। এই ম্যাচে টস জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। শুরুতে সিম ও সুইং আশা করছেন তিনি।

টস জিতে শান্ত বলেন, ‘আমরা প্রথমে বোলিং করতে চাই. কারণ শুরুতে আমরা কিছুটা সীম ও সুইং আশা করি। বিশেষ করে এই ফরম্যাটে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, গত কয়েক দিনে চার টপ অর্ডার ব্যাটার অনেক পরিশ্রম করছে।’

চোটের কারণে যুক্তরাষ্ট্র সিরিজ মিস করা তাসকিন আহমেদ ফিরছেন এই ম্যাচ দিয়ে। তবে বাংলাদেশ পাচ্ছে না আরেক পেসার শরীফুল ইসলামকে। ভারতের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচে আঙুলে চোট পান শরীফুল। আগেই জানা গিয়েছিল প্রথম ম্যাচে থাকছেন না তিনি।

বাংলাদেশ একাদশ

তানজিদ হাসান, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন (অধিনায়ক), তাওহিদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রিশাদ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান ও তানজিম হাসান।

শ্রীলঙ্কা একাদশ

পাথুম নিসাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস , কামিন্দু মেন্ডিস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, চারিথ আসালাঙ্কা, ওয়ানিন্দু হাসরাঙ্গা (অধিনায়ক), অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দাসুন শানাকা, মহেশ থিকশানা, নুয়ান থুশারা, মাথিশা পাথিরানা।

মানবজমিনের লাইভ আপডেটে স্বাগত জানাই আপনাদের। ম্যাচজুড়ে সঙ্গে থাকছি আমি স্পোর্টস রিপোর্টার সৌরভ কুমার দাস। আজ সাড়ে ৬টায় লঙ্কানদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন।

ষোলোবারের দেখায় বাংলাদেশের জয় ৫ ম্যাচে। শেষ তিনবারের দেখায় দুইবারই জিতেছে শ্রীলঙ্কা। তবে বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ কখনোই জিততে পারেনি। ২০২১ সালে সবশেষ দেখায় শ্রীলঙ্কা ৫ উইকেটে জয় পেয়েছিল। এর আগে ২০০৭ সালে প্রথম আসরে ৬৪ রানে জয় পায় লঙ্কানরা।